Tratina uwriter club

ত্রাতিনা – বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী

বই : ত্রাতিনা
লেখক : মুহম্মদ জাফর ইকবাল
প্রকাশকাল : ফেব্রুয়ারি ২০১৮
প্রকাশন : সময় প্রকাশন
পৃষ্ঠা সংখ্যা : ১৩৬
মূল্য : ২৬০ টাকা
প্রচ্ছদ : ধ্রুব এষ
আমার রেটিং : ২.৮/৫

কাহিনী সংক্ষেপ:
পৃথিবী এমন একটা পর্যায়ে পৌছেছে যখন শাসন ক্ষমতা কোনো সরকারি দল বা ব্যাক্তির হাতে নয় রয়েছে বিজ্ঞানীদের হাতে। পৃথিবীর মানুষেরা তাদের দেখভালের ভার ছেড়ে দিয়েছে বিজ্ঞানীদের হাতে। এখন কোনো নিউক্লিয়ার বোমা নেই, কোনো যুদ্ধ বিগ্রহ নেই। একসময় বিজ্ঞানীরা লক্ষ্য করলেন একটি গ্রহাণু ছুটে আসছে পৃথিবীর দিকে। এর আকার এতটাই সুবিশাল যা মনে করিয়ে দেয় ৬৫ মিলিয়ন বছর আগের ডাইনোসরদের বিলুপ্ত হওয়ার ঘটনাকে। ৪৮ ঘন্টার ভেতরে গ্রহাণুটি আঘাত করবে আর পৃথিবী ৬৫ মিলিয়ন বছর আগের সেই অবস্থায় ফিরে যাবে। বিজ্ঞানীদের মহাপরিচালক মহামান্য রিহা তাই বিজ্ঞানীদের নিয়ে সভায় বসলেন। শেষ পর্যন্ত ঠিক হলো রায়ানা একাই গ্রহাণুটিকে ধ্বংস করতে যাবে এক “সুইসাইড মিশনে” । নিজের মেয়ে ত্রাতিনাকে অনাথ আশ্রমে রেখে ৭ বিলিয়ন মানুষের জীবন বাঁচাতে নিজের জীবনকে উৎসর্গ করল। বোমা বিস্ফোরণের আগে জানতে পারল সেটি কোনো গ্রহাণু নয় কোনো এক মহাজাগতিক প্রানের তৈরি স্পেসসিপ। সেই মহাজাগতিক জীব কেন চাচ্ছিলো পৃথিবীকে ধ্বংস করতে? কি হতে যাচ্ছে তাদের পরবর্তী পদক্ষেপ?

মতামত:
প্রথম অংশের কাহিনীটুকু লিখলাম শুধু।শুরুতে একরকম জাকজমক ভাব থাকলেও শেষের দিকে তা আর থাকে নি। চমৎকার একটি প্লট ছিলো কিন্তু আমি বলব কাহিনী অতি সংক্ষেপিত করা হয়েছে। ১৩৬ পেজের জায়গায় ৩০০ পেজের সাইন্স ফিকশন হতে পারত। তখন বইটি অনেক বেশি গ্রহনযোগ্যতা পেত। লেখক বেশ কিছু টপিক বিস্তারিত না লিখে এড়িয়ে গেছেন। ফলে তার চেনাজানা সাইন্স ফিকশনের রূপ এতেও থাকছে। মানে এন্ড্রয়েড, নারীর ভূমিকা, এলিয়েন। তবে ঐ যে বললাম ৩০০ পেজ হলে চমৎকার একটা বই হত। এছাড়া ও বইয়ের ভেতরে ত্রাতিনার বয়সের হিসেব নিয়ে গোলমাল আছে। আরও একটা ভুল আছে সেটা বললে লেখাটা স্পয়লার হয়ে যাবে। আমি জাফর ইকবালের প্রায় সব সাইন্স ফিকশন পড়েছি তাই এই বইয়ে কিছু একটা নতুনত্ব পেতে গিয়েও পাই নি। তবে সদ্য পাঠক হয়েছে এমন কিছু বন্ধুদের মাঝে বইটা নিয়ে দারুণ জল্পনা কল্পনা দেখছি। একজন বলেই ফেলেছিল বইটা নাকি মাস্টারপিস। তাই যদি জাফর ইকবালের সাইন্স ফিকশন প্রথম পড়বেন তেমন কেউ থাকেন সেক্ষেত্রে বইটা ভালোই হবে। তবে সংক্ষেপিত হওয়ায় প্লট আর নতুন শব্দ নিয়ে বিপাকে পড়তে পারেন।

About the Author ফাহিম মোন্তাসির

স্বপ্ন দেখি একদিন বিশাল এক লাইব্রেরির মালিক হব। এই আধো-বাস্তবতার বাইরেও অতি বাস্তব একটি স্বপ্ন আছে, বড় হয়ে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হব। লেখালেখির প্রারম্ভে আছি। সাহিত্যিক হওয়ার ইচ্ছা নেই, শখের বশেই লিখি। বর্তমানে পড়ালেখা করছি আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলে।

follow me on:

Leave a Comment: