বদলে গেছে

মানুষটা অার অাগের মত নেই,
অাগের সেই টকটকে আর ভরাট তেজী মুখ,
এখন বড্ড শুকিয়ে গেছে,নেই মনেতে সুখ।
চোখেতে তার ঝরত অাগুন,ছুটত বুলি মুখে,
অাজ বাক্য নেই শুকনো গলায়,ক্ষীণ দৃষ্টিচোখে।

 

মানুষটা অার অাগের মত নেই,
ভীষণ রাগীমানুষ,গ্রাম জুড়ে সেকি দাপট!
ঘরের কোনে একা সে অাজ শীর্ণ দেহ রুদ্ধ কপাট।
গ্রামে তার কাছে বিচার চেয়ে জটলা হত রোজ,
সেই মানুষ অাজ শয্যাগত কজন রাখে খোঁজ?
মানুষটা অার অাগের মত নেই,
চায়না সে অার জমিদারি, হিসেব লেখা খাতা,
ফিরিয় দাও খাবার রুচি,ভাল করে দাও ব্যাথা।

 

শুধু সুস্থ্য জীবন এই একটাই চাওয়া অাছে,
শেষ সময়ে পার্থিব সব মোহ কার কেটে গেছে।
দুর্বল মন ঘোলাটে চক্ষে একটাই ক্ষীণ অাশা,
মাঝে মাঝে পুরানো স্মৃতি মনে পড়ে ভাসা ভাসা।
শেষ কালে এসে জেনেছে সে বাঁচার আসল অর্থ,
বুঝেছে গত ৬০টা বছর সে ছিল চরম ব্যর্থ।
ভেঙ্গে গেছে সুঠাম দেহ,নরম হয়েছে মন, পুরোটাই
বদলে গেছে অার নেই অাগের মতন।

Leave a Comment: